Logo

 
আরডিআরএস বাংলাদেশ
Logo

আরডিআরএস বাংলাদেশ সম্পর্কে

আরডিআরএস ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর থেকে প্রায় ৪ দশকেরও বেশি সময় ধরে ত্রাণ সহায়তা দান, পুনর্বাসন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসূচি পরিচালনার মধ্য দিয়ে পিছিয়ে থাকা উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন-সহযোগী সংস্থায় পরিণত হয়েছে। এনজিওগুলোর নানা ধরনের উন্নয়ন কর্মকা-ের ফলে রংপুর বিভাগের মানুষ এখন আগের তুলনায় বেশি সেবা পাচ্ছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর সেবা, সরবরাহ ও সহায়তার পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোগও বেড়েছে। সর্বোপরি, এ অঞ্চলের মানুষের আর্থ-সামাজিক জীবনমান উন্নয়নে আরডিআরএস বাংলাদেশ যে নিরবচ্ছিন্নভাবে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখে চলেছে সেটা স্পষ্ট। একথা নিশ্চিত ভাবে বলা যায় যে, আরডিআরএস বাংলাদেশ তার কাজের মধ্য দিয়েই এ অঞ্চলে একটি শক্ত ভিত্তির উপর দাঁড়িয়েছে। তা না হলে এত দীর্ঘ সময় ধরে এই সংস্থা সুনামের সঙ্গে টিকে থাকতো না। অতীতের সাফল্য যখন ভবিষ্যতের নিশ্চয়তা দিতে পারে না, তখন আমরা আমাদের বর্তমান কর্মকা-ে যেসব স্থানীয় সহায়তা পাচ্ছি, তাতে প্রতীয়মান হয় যে, গ্রামীণ দরিদ্র ও শহরের সুশীল সমাজ আমাদেরকে ইতিবাচকভাবেই তাদের উন্নয়ন-সহযোগী হিসেবে মেনে নিয়েছে। জীবনযাত্রার মানের উন্নয়ন সত্ত্বেও পিছিয়ে পড়া, অনগ্রসর এ অঞ্চল এবং এর গ্রামীণ দরিদ্র মানুষের ক্ষমতায়নের জন্য প্রয়োজন কার্যকর ও দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন অঙ্গীকার। ভিশন: একটি বৈষম্যহীন ও শান্তিকামী সমাজব্যবস্থা যেখানে নাগরিকগণ দারিদ্র্য, অজ্ঞতা ও দুর্দশামুক্ত টেকসই পরিবেশে মর্যাদার সঙ্গে বসবাস করতে পারবে। মিশন: আরডিআরএস দরিদ্র জনগোষ্ঠি ও তাদের সংগঠনের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে কাজ করে; প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলার সামর্থ্য সৃষ্টি করে; এবং দারিদ্র্য ও দুর্দশামুক্ত থেকে মানসম্মত জীবনযাপনের জন্য প্রয়োজনীয় সুযোগ সৃষ্টি করে। মূল্যবোধসমূহ: আরডিআরএস এর মূল্যবোধসমূহ স্থান, কাল, পাত্র ও স্বপ্নের দিক থেকে অনন্য। মূল্যবোধের প্রধান দিকসমূহ যা কিনা আরডিআরএস ও কর্মসূচিসমূহের মধ্যে নিহিত, তা হলো ঃ সহমর্মিতা ক্ষমতায়নের জন্য দীর্ঘমেয়াদি প্রতিশ্রæতি সমতা ও অংশগ্রহণ নিষ্ঠা, আত্মত্যাগ ও পেশাদারিত্ব দায়িত্ব, জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা